wordpress blog stats
৩০ জুলাই ২০১৪ বৃহস্পতিবার

২৬ শে মার্চ উপলক্ষে দুই দিনের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি বিএনপির

০৪, মার্চ ০৭ : ১৪ অপরাহ্ন

বিডিলনিউজঃ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে দুই দিনের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। দিবসটি উপলক্ষে সহযোগী সংগঠনগুলো আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি পালন করবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। আজ মঙ্গলবার বিকেলে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যৌথ সভার পর এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে কর্মসূচি ঘোষণা করেন মির্জা ফখরুল।

তিনি বলেন, “জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষণার মধ্য দিয়ে এদেশে মানুষ মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। ৯ মাসের যুদ্ধে যে দেশটি স্বাধীন হয়েছিল, তার লক্ষ্য ছিল, গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করা। কিন্তু আওয়ামী লীগ অতীতে সেই গণতন্ত্রকে হত্যা করে একদলীয় বাকশাল প্রতিষ্ঠা করেছিল। এবার তারা ভিন্ন লেবাসে একদলীয় শাসন প্রতিষ্ঠা করতে চায়। “গণতন্ত্রের এই দুঃসময়ে এবারে মহান স্বাধীনতা দিবসটি বিএনপি গুরুত্বের সঙ্গে উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।”

 

ফখরুল জানান, স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে কেন্দ্রীয় কর্মসূচি হিসেবে ২৫ মার্চ বিকেল ৩টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে আলোচনা সভা, ২৬ মার্চ দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ভোর সাড়ে ৬টায় সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণ এবং সাড়ে ৮টায় শেরে বাংলানগরে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হবে। 

এছাড়া স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে যুবদল, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, শ্রমিক দল, মহিলা দল, তাঁতী দল, উলামা দলসহ সহযোগী সংগঠনগুলো আগামী ২৩ মার্চ থেকে সাপ্তাহব্যাপী রাজধানীসহ সারা দেশে কর্মসূচি পালন করবে।

ব্রিফিংয়ে সরকারের সমালোচনা করে বিএনপি নেতা ফখরুল বলেন, ‘অস্ত্রের জোরে’ গণতন্ত্রকে ‘অবরুদ্ধ’ করে রেখেছে সরকার।

“এখন দেশে যে সরকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, তাদের সাংবিধানিক কোনো বৈধ্যতা নেই। তারা মানুষের গণতান্ত্রিক ও ভোটের অধিকার হরণ করেছে। অস্ত্রের জোরে ক্ষমতায় বসে তারা গণতন্ত্রকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে।”

ফখরুল জানান, ২০ মার্চ জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশ করবে। সেখানে প্রধান অতিথি থাকবেন খালেদা জিয়া উপস্থিত থাকবেন।

মির্জা ফখরুলের সভাপতিত্বে যৌথ সভায় অন্যদের মধ্যে যুগ্ম মহাসচির সালাহউদ্দিন আহমেদ, মোহাম্মদ শাহজাহান, রুহুল কবির রিজভী, সাংগঠনিক সম্পাদক মসিউর রহমান, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম, কাজী আসাদুজ্জামান, খায়রুল কবির খোকন, নাজিম উদ্দিন আলম, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শামীমুর রহমান শামীম, আসাদুল করীম শাহিন, এ বি এম মোশাররফ হোসেন, সহযোগী সংগঠনের জাফরুল হাসান, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, আবদুস সালাম আজাদ, আবু সাঈদ খান খোকন, শিরিন সুলতানা, ফরিদা ইয়াসমীন, হুমায়ুন ইসলাম খান, আবুল কালাম আজাদ, এম এ মালেক, হাফেজ এম এ মালেক, শাহ মো. নেসারুল হক, ওবায়দুল হক নাসির প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Comments

Optimization WordPress Plugins & Solutions by W3 EDGE